বুধবার, ১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Bengali Bengali English English

শিরোনাম

কক্সবাজার প্রতিনিধি :

কক্সবাজার শহরের ৬নং ওয়ার্ডের গরুর হালদা এলাকায় খুন হওয়া সাহাবউদ্দীন হত্যা মামলার বাদী ও নিহতের পরিবারকে নানাভাবে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার ৫ সেপ্টেম্বর বেলা ১২টার দিকে নিহত সাহাবউদ্দীনের মা খুরশীদা বেগম ও তার অপরাপর আত্মীয় স্বজনকে পুলিশ দিয়ে হয়রানি করার চেষ্টা করেছে বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী। এসময় তারা চিহ্নিত খুনিদের শীঘ্রই আটক করতে বিক্ষোভও করেছে।
গরুর হালদা এলাকার সমাজের সভাপতি মোশারফ আজাদ মনসুর জানিয়েছেন, গত ২০ আগস্ট স্থানীয় কতিপয় চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের হাতে সাহাবউদ্দীন নিহত হয়। এঘটনায় সাহাবউদ্দীনের মা বাদী হয়ে কক্সবাজার মডেল থানায় ৪জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করে। এরপরে আসামীরা এলাকা ছেড়ে চলে গেলে আসামীদের বসতঘরটি সামাজিক বৈঠকে সিদ্ধান্তের মাধ্যমে দায়িত্বশীলদের কাছে জিম্মা রাখা হয়। বুধবার ৫সেপ্টেম্বর বেলা ১২টার দিকে আসামী পক্ষের লোকজন পুলিশের সহায়তায় উক্ত বাড়িতে প্রবেশ করতে চাইলে এলাকাবাসী প্রতিরোধ গড়ে তোলে। এবং বিক্ষোভ জানায়। এসময় পুলিশও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় উভয় পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা করে।
নিহত সাহাবউদ্দীনের মা খুরশীদা বেগম জানান, সন্ত্রাসীরা পুনরায় এলাকায় প্রবেশ করে তাদের হুমকি ধমকি দিচ্ছে। বাদীসহ নিহতের অন্যান্য আত্মীয় স্বজনের বিরুদ্ধে সাজানো নারী নির্যাতনের নামে মিথ্যা মামলা করে ফাসিয়ে দিতে তৎপরতা চালাচ্ছে। একাজে সন্ত্রাসীরা তাদের এক পারিবারিক আইনজীবিকে কাজে লাগাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন।
কক্সবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফরিদ উদ্দিন খান জানান, গত ২০ আগস্টের একটি হত্যা মামলার বিষয়ে আসামীদের দ্রুত গেফতার করতে এলাকাবাসী দাবী জানিয়েছে। আমরা আসামীদের ধরতে চেষ্টা করছি। সেখানে এলাকাবাসীকেও শান্ত করেছি।

আপনার প্রতিষ্ঠানের বা পণ্যের বিজ্ঞাপন দিয়ে অনলাইন প্রকাশনাকে উৎসাহিত করুন। বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুনঃ

ই-মেইলঃ dainikteknafnews85@gmail.com

ফোনঃ 01815542234

এ ওয়েবসাইটের কোন ছবি বা নিউজ অনুমতি ছাড়া নকল বা প্রকাশ করা সম্পূর্ন বেআইনী ।

সুমন রেজা, টেকনাফ

অফিস: আল-জামেয়া মার্কেট,  টেকনাফ, কক্সবাজার,

যোগাযোগঃ 01815542234